Sports

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কে কতবার নিয়েছে

 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কে কতবার নিয়েছে খুব শীঘ্রই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আইসিসি টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের সপ্তম তম আসর টি। আর তাই তো ICC সর্বোচ্চ এই টুনামেন্ট নিয়ে আমাদের জল্পনা-কল্পনার আর শেষ নেই আর, এজন্যই ওয়ার্ল্ড কাপ কে সামনে রেখে আমাদের আজকের এই আটিকেল টি তৈরি করা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম আসর অনুষ্ঠিত হয় ২০০৭ সালে। ২০০৭ সাল থেকে এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ৬ টি আসোর অনুষ্ঠিত হয়েছে। তো চলুন পড়ে নেয়া যাক ২০০৭ সাল থেকে এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী দলের তালিকা।

Also my Link..

 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কে কতবার নিয়েছে 

  • ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম আসর অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০০৭ সালে ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হয় ভারত বনাম পাকিস্তান সেই ম্যাচটি ভারতয় লাভ করে এবং ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়।
  • ২০০৯ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয় পাকিস্তান বনাম শ্রীলংকা ম্যাচ পাকিস্তান জয় লাভ করে এবং তার সাথে ২০০৯ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হয়।
  • ২০১০ আসোরে ফাইনাল খেলে ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে টিতে ইংল্যান্ড জয়লাভ করে এবং ২০১০ আসরের চ্যাম্পিয়ন হয়।
  • ২০১২ সালে টি বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম শ্রীলংকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ জয় লাভ করে এবং ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হয়
  • ২০১৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয় শ্রীলঙ্কা বনাম ইন্ডিয়া সেই ম্যাচটিতে শ্রীলঙ্কা জয় লাভ করে এবং ২০১৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হয়।
  • ২০১৬টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সর্বশেষ আসরটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৬ সালে সেরা আশোরটির ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম ইংল্যান্ড ম্যাচটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ জয়লাভ করে ২০১৬ চ্যাম্পিয়ন হয়।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কে কতবার নিয়েছে বিস্তারিত আলোচনা

আজকের এই আটিকেল টি পড়ার মাধ্যমে আমরা আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করব আইসিসি টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপে এখন পর্যন্ত কোন কোন দেশ চ্যাম্পিয়ন হতে পেরেছে এবং কোন দেশ কতবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।কোথায় কিভাবে কত রানে হেরেছে এবং কে কত রানে জিতেছে  এবং কোন খেলায় কে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ এছারাও বিস্তারিত অনেক কিছু আলোচনা করা হবে।

মুলোতো টি-টোয়েন্টি প্রাথম আসোরটা অনোসষ্ঠিত বা প্রতিস্থিত হয় ২০০৭ সালে। এবং টুনামেন্ট টি প্রাথম আয়োজক ছিলো সাউথ আফ্রিকা সেবছর মোট ১২ টি দেশ অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়েছিল।

আর সেই ১২টা দেশ ছিলো সাউথ আফ্রিকা অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ড পাকিস্তান স্কটল্যান্ড অস্ট্রেলিয়া জিম্বাবুয়ে বাংলাদেশ ইংল্যান্ড ইন্ডিয়া এবং শ্রীলংকার

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচ ২০০৭ -১১ সেপ্টেম্বর আর টুনামেন্টর সাউথ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ উদ্বোধনী ম্যাচের ১৩ দিন পর ২৪ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত টুনামেন্ট টি হয় ফাইনাল ম্যাচ টি এবং টুর্নামেন্টের ফাইনাল

উঠে ইন্ডিয়া এবং পাকিস্তান। ইন্ডিয়া টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে সংগ্রহ করে ১৫৭ রান জবাবে পাকিস্তান ১৫২ রান করে ছিলো এবং ৫ রানের ব্যবধানে টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের প্রথম চ্যাম্পিয়ন হয় ইন্ডিয়া।

তবে মাত্র পাঁচ রানের ব্যবধানে ইন্ডিয়ার কাছে পরাজিত হলেও টুর্নামেন্ট সেরা প্লেয়ার নির্বাচিত হন পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি।

বিশ্বকাপ কে কতবার জিতেছে

টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী অস্ট্রেলিয়ার মৃত্যু হেডেন্ট তিনি টুনামেন্ট জুরে মোট ২৬৫ রান সংগ্রহ করে। এবং টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেট পাকিস্তানের ওমোর।

২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার দু’বছর পর ২০০৯ সালে অনুষ্ঠিত হয় আইসিসি টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের দ্বিতীয় আসরটি।

সে বছরের টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছিল ইংল্যান্ড ২০০৭ এর মত ২০০৯ ওয়ার্ল্ড কাপ টুর্নামেন্টে মোট ১২ টি দেশ অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়েছিল।

তবে এ বছর টুর্নামেন্টে প্রাথম আসোরে অংশগ্রহণ করা দুটি দল জিমবাবু এবং কেনিয়া বাদ পড়ে ছিলো এবং নতুন করে সুযোগ পেয়েছিল নেদারল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ড সে বছর টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০০৯ এর ৫ জুন এবং উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল নেদারল্যান্ড।

আর উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডে কে ৪ উইকেটে পরাজিত করেছিল নেদারল্যান্ড এবং উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার ১৬ দিন পর ২১ শে জুন অনুষ্ঠিত হয় পুরা ইন্ডিয়ার ফাইনাল ম্যাচ টি।

সে বছর টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছিল পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কা শ্রীলঙ্কা ফাইনালে টস জিতে প্রাথমে ব্যাট করে ১৩৮ রান করেন। সে ম্যাচে জয় লাভ কেরে পাকিস্তান।

টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের দ্বিতীয় আসর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে পাকিস্তান টুর্নামেন্ট সেরা নির্বাচিত শ্রীলংকা ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ৩১৭ রান সংগ্রহ করেছিলেন। আর টুর্নামেন্টের সেরা উইকেট শিকারির পুরস্কার পেয়েছিলেন পাকিস্তানের ওমরপুর।

তিনি পুরো টুর্নামেন্টে জুরে সর্বোচ্চ ১৩ টি উকেট স্বীকার করতে সক্ষম হন ২০০৯ টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের টি আনোসটিতো হবার দ্বিতীয় আসরটি এবং সে বছর পূর্ণ  আয়োজন করার সুযোগ পায় । ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর ২০১০ পূর্বের মত মোট কয়টি দেশ নিয়ে টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছিল সেই আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখ্যমন্ত্রী হয় আয়ারল্যান্ড ।

এবং আইরিশদের ৭০ রানের বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ২০১০ আসরের ফাইনালে উঠেছিল অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ড বার্বাডোজে অনুষ্ঠিত হওয়া ফাইনাল ম্যাচের টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ইংলিশরা । প্রাথমে ব্যাট করে ১৪৭ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হন অস্ট্রেলিয়া জবাবে মাত্র তিন উইকেট হারিয়ে ১৮ বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে।

যা শুনলে ইংল্যান্ড ইংল্যান্ড বলে টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের তৃতীয় আসর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন ইংলিশেরা। আর টুর্নামেন্ট সেরা নির্বাচিত হন ইংল্যান্ডের কেবির ফিনারসোন ক্রিকেট। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ সরকারী শ্রীলঙ্কার মাহেলা জয়াবর্ধন তিনি পরো টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ৩০২ রান সংগ্রহ করেননি সর্বোচ্চ বিচার করে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button